সোমবার, ১৭ মে ২০২১, ০৮:৪০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
কাউখালী আবাসনের বঞ্চিত শিশুদের ঈদের নুতন পোশাক দিলেন ইউএনও ঈদ মোবারক। দৈনিক শীর্ষ সংবাদ পিরোজপুরে অসহায় কর্মহীন মানুষের পাশে “ফ্রেন্ডস’ ৯৭ পিরোজপুর” নেছারাবাদে সাত বছর বয়স থেকে পুরো ত্রিশ রোজা রাখছে মারিয়াম স্বরূপকাঠিতে বাবার মৃত্যুর শোক কাটতে না কাটতেই ফেরিঘাটে পদদলিত হয়ে ছেলের মর্মান্তিক মৃত্যু স্বরূপকাঠিতে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রীর অনুদান পেলেন ৪৬ ব্যাক্তি       দুই কজি গাঁজা সহ মাদক ব্যাবসায়ী গ্রফতার স্ত্রীর পরকীয়া ধরতে গিয়ে স্বামী প্রেমিকের হাতে নির্যাতনের শিকার নেছারাবাদে সারেংকাঠী ইউনিয়নে ভিজিএফের নগদ অর্থ বিতরন স্বরূপকাঠিতে বোরো ধান- চাল সংগ্রহ শুরু

সারেংকাঠি ইউপি সদস্য আবিরের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ

নেছারাবাদ প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময়ঃ শুক্রবার, ৩০ এপ্রিল, ২০২১
  • ৬৮ জন দেখেছেন

স্বরূপকাঠির সারেংকাঠি ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের সদস্য শেখ আব্দুর রহিম (আবির) এর বিরুদ্ধে ঘুস দুর্নীতি সহ নানা অভিযোগ পাওয়া গেছে । গৃহহীনদের ঘর দেয়ার কথা বলে টাকা নেয়া, বিভিন্ন জনকে টিউবওয়েল দেয়ার আশ্বাস দিয়ে টাকা গ্রহন ও দরিদ্রদের ভাতা দেয়ার নামে উৎকোচ গ্রহনসহ সীমাহীন দুুর্নীতি করে পার পেয়ে যাচ্ছে ইউপি সদস্য আবির। সংখ্যালঘু অধ্যুষিত করফা ঠাকুরবাড়ি এলাকায় আবির একটি সন্ত্রাসী চাঁদাবাজ গ্রæপ নিয়ন্ত্রন করায় সাধারণ মানুষ জিম্মি হয়ে পড়েছে। ইউপি চেয়ারম্যান সায়েম শেখের বিশ্বস্ত ক্যাডার ইউপি সদস্য আবিরের অপকর্মের বিরুদ্ধে মানুষ মুখ খুলতে সাহস পাচ্ছে না।


সরজমিনে জানাগেছে শেখ আব্দুর রহিম আবির ইউপি সদস্য নির্বাচিত হওয়ার পর গত পাঁচ বছরে দরিদ্রদের ভাতা প্রদানে ঘুস গ্রহন, উন্নয়ন কাজ না করে টাকা অত্মসাত,সরকারি সাহায্য পাইয়ে দেয়ার কথা বলে অগ্রিম ঘুস নিয়ে দরিদ্রদের টাকা আত্মসাত করার অভিযোগ রয়েছে আবিরের বিরুদ্ধে। দরিদ্র গনেশ মন্ডল ও মালতি রানিকে সরকারি ঘর পাইয়ে দেয়ার কথা বলে বিশ হাজার টাকা ঘুস নিয়েছেন বলে অভিযোগ করেন ওই দম্পত্তি। মালতি অভিযোগ করেন,ইউপি সদস্য আবিরের বিশ্বস্ত সহচর সুদেব সিংহ (দোকানদার) গত বছর শ্রাবন মাসে তার কাছ থেকে একটি ঘর দেয়ার কথা বলে ২০ হাজার টাকা নিয়েছে । তারপর ঘরের জন্য সুদেব সিংহ এবং আবিরের গেলেই তারা পরবর্তী বরাদ্ধ আসার পর দিবে বলে সময় ক্ষেপন করে এখন পর্যন্ত ঘর দেয়নি। এছাড়াও একই গ্রামের কবির নামে এক দরিদ্রকে ঘর দেয়ার কথা বলে আবির পাঁচ হাজার টাকা নিয়ে ঘর দেয়নি। এমনকি কবিরের টাকাও ফেরত দেয়নি । এদিকে স্কুল শিক্ষিকা লেখা মিস্ত্রী অভিযোগ করেন তাকে একটি গভীর নলকুপ দেয়ার কথা বলে আবির মেম্বর ২৩ হাজার টাকা নিয়েছে প্রায় দুই বছর আগে। এখন পর্যন্ত তার টিউবওয়েল দেয়নি ওই ইউপি সদস্য। হরশিত বৈদ্যেকে বয়স্ক ভাতা প্রদানে তিন হাজার টাকা নিয়েছেন আবির। এভাবে ওই ওয়ার্ডে তার সময়ে ভাতা প্রাপ্তদের প্রত্যেকেই তিন থেকে পাঁচ হাজার টাকার বিনিমিয় ভাতা পেয়েছেন বলে বিস্তর অভিযোগ আছে আবিরের বিরুদ্ধে। টাকা পয়সা নেয়ার এসব অভিযোগ অস্বীকার করে ইউপি সদস্য আব্দুর রহিম আবির বলেন,গত ৫ বছরে তার বিরুদ্ধে কেউ কোনো অভিযোগ করেনি। এবার প্রার্থী হওয়ার পরে তার প্রতিদ্ব›িদ্বরা চক্রান্ত করে তাদের কিছু সমর্থক দিয়ে মিথ্যা অপপ্রচার চালাচ্ছে। ইউপি সদস্যের দুর্নীতির বিষয় সারেংকাঠি ইউপি চেয়ারম্যান সায়েম শেখ এর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আবিরের এত দুর্নীতির কথা আগে কেউ তার কাছে অভিযোগ দেয়নি। ঘর এবং টিউবওয়েল দেয়ার কথা বলে কারো কাছ থেকে টাকা নিয়ে থাকলে তিনি বিষয়টি দেখবেন বলে জানান। এ বিষয় নেছারাবাদ(স্বরূপকাঠি)উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. মোশারেফ হোসেন বলেন,ক্ষতিগ্রস্থরা ওই ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে অভিযোগ দিলে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

শেয়ার করুন

একই ধরনের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2020 dailyshirshosongbad
Developed By NCB IT