শুক্রবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৭:৩৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম
নাজিরপুরে কলেজছাত্রীকে যৌননির্যাতনের অভিযোগে গণ মানববন্ধন। দৈনিক শীর্ষ সংবাদ জমিজমার বিরোধের জের ধরে দুই গ্রুপে মারামারি থানায় মামলা গ্রেফতার ১জন।দৈনিক শীর্ষ সংবাদ ইউএনও ওয়াহিদা খানমের উপর সন্ত্রাসী হামলার বিচারের দাবিতে স্বরূপকাঠিতে মানববন্ধ।দৈনিক শীর্ষ সংবাদ ডেস্ক মসজিদে বসে প্রধানমন্ত্রীকে কটুক্তি করায়  বিএনপি নেতার বিরুদ্ধে তদন্তের নির্দেশ।দৈনিক শীর্ষ সংবাদ স্বরূপকাঠীতে ভ্রাম্যমাণ আদালতে ৩ ব্যবসায়ীকে ১৪ হাজার টাকা জরিমানা ইউপি সদস্য মন্টু মিয়ার বিরুদ্ধে এলাকাবসীর অভিযোগ উন্নয়নের নামে শুভঙ্করের ফাঁকি।দৈনিক শীর্ষ সংবাদ ডেস্ক নেছারাবাদে মাছ ধরতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ছাত্রের মৃত্যু।দৈনিক শীর্ষ সংবাদ বানারীপাড়ায় সমাধির উপর ব্রীজ নির্মানের আশংকায় সমাধী রক্ষার সন্তানের আকুতি।। বানারীপাড়ায় বিদ্যুতের শর্ট সার্কিট থেকে গুরুতর জখম এনপিপি সদস্য।দৈনিক শীর্ষ সংবাদ নেছারাবাদে যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার।দৈনিক শীর্ষ সংবাদ

খেয়া ভাড়াতো নয় যেন গলার কাঁটা বানারীপাড়া বাসীর দুর্ভোগ।দৈনিক শীর্ষ সংবাদ

শীর্ষ সংবাদ ডেস্ক
  • প্রকাশের সময়ঃ বুধবার, ২ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ৭৪ জন দেখেছেন
বানারীপাড়া উপজেলা আটটি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভা নিয়ে বেষ্টিত,যার মধ্যে দিয়ে বয়ে চলছে সন্ধ্যা নদী সোজা কথায় নদীর পূর্ব পাড় তিনটি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভা এছাড়া নদীর পশ্চিম পাড় পাচঁটি ইউনিয়ন নিয়ে বানারিপাড়া উপজেলা। নদীর পশ্চিম পাড়ে প্রায় ৬০% ভোটার,যাদের প্রতিদিনের নিত্যপ্রয়োজনে নদীর পূর্ব পাড়ে আসতে হয় মাত্র একটি খেয়া ঘাটের উপর নির্ভর করে। যাাদের অধিকাংশ মানুষই নিম্ন আয়ের,কর্মজীবনের জন্য প্রতিদিন প্রায় দু তিন বার খেয়া পারাপার হয়ে আসতে পূর্ব পাড়ে অর্থাৎ পৌরসভা,থানা,বন্দর বাজার,উপজেলা কার্যালয়,স্কুল,মাদ্রাসা ও কলেজে। গত বছর ধরে পশ্চিম পাড় বাসীর গলার কাঁটা হয়ে দাড়িয়েছে খেয়া ভাড়া। সরেজমিনে দেখা যায় সন্ধ্যা নদী পারাপারে যাত্রী সাধারণ প্রতিনিয়ত হয়রানীর শিকার হচ্ছেন খেয়া ইজারাদারের লোকজনের খাম খেয়ালীপনায়। প্রথমত ধারন ক্ষমতার অতিরিক্ত যাত্রী বোঝাই করে পারাপর করছে তারা। চলতি বছরে খেয়া পারাপারের জন্য বরিশাল জেলা পরিষদ বৈশাখ মাসে ইজারা ডাকলে বাইশারী ইউপি সদস্য মোঃ জাহাংগীর হোসেন ৬০লাখ ২৫ হাজার টাকায় বরিশাল জেলা পরিষদ তাকে কার্যাদেশ দেয়। চলতি বছর ইজারা দেয়ার পূর্বে সন্ধ্যা নদী পার হতে যাত্রীদের প্রতিজন ৩ টাকা দিত যা এখন ৪ টাকা,প্রতি সাইকেল সহ জন প্রতি ৪ টাকার স্থলে ৮ টাকা,মটর সাইকেল ২০ টাকার স্থলে ৩০টাকা, অটো বা বৌ গাড়ী ৩৫ টাকার স্থলে ২শত টাকা জোড় পূর্বক আদায় করছে। এর প্রতিবাদ করলে হয়রানীর শিকার হন সাধারণ যাত্রীরা। খেয়া পারাপরের টোল চার্ট টানানোর কথা থাকলেও চার্ট খুজে পাওয়া যায়নি কোথাও বরং টোল চার্টের এর কথা জানতে চাইলে যাত্রদীরে হাত পা ভেঙ্গে দেয়ার হুমকী দেয়া হয়। এ বিষয়ে রোববার এক যাত্রী আউয়াল জানান, প্রশসানের পক্ষে কোভিট-১৯ বিষয়ে প্রচার শেষে বৌ গাড়ীর ভাড়া বাবদ ৪শ টাকা দাবী করে। এর পতিবাদ করলে তাকে ইজারাদারের ছেলে সাগর বিভিন্ন হুমকী দেয়। পরে এ বিষয় ইউএনও কে অবহিত করবেন বললে ইজারাদারের ছেলে সাগর অশ্লীল ভাষায় হুমকী দেয়। পরে তার কাছ থেকে ২শ টাকা আদায় করে ও তিনি কোন রকম প্রানে বেচেঁ আসেন। ভূক্তভোগী হরিচাদ ও মোঃ সুমন জানান, আমাদের মটর সাইকেল পার করতে ৩০ টাকা ভাড়া দিতে হয়েছে। এ ব্যাপারে ইজারাদার মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ মিথ্যা এবং তার ছেলে কারো সাথে খারাপ ব্যাবহার করেনা। টোল চার্ট কেন লাগানো হয়নি জানতে চাইলে তিনি বলেন এমপি এবং উপজেলা চেয়ারম্যান সিদ্ধান্ত কি দেয় সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে। বিষয়টি উপজেলা চেয়ারম্যান গোলাম ফারুকের দৃস্টি আকর্ষন করলে তিনি বিষয়টি দেখবেন বলে জানান। এ ব্যাপারে ইজারা কর্তৃপক্ষ বরিশাল জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মানিকহার রহমান জানান, টোল চার্ট ছাড়া খেয়ায় যাত্রীদের কাছ থেকে ভাড়া আদায় করা সম্পূর্ন অন্যায়। আমি সরেজমিনে পরিদর্শন করে ব্যবস্থা নেব।

শেয়ার করুন

একই ধরনের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2020 dailyshirshosongbad
Developed By NCB IT